গুরু বিপিন সিংহ

মুক্ত বিশ্বকোষ উইকিপিডিয়াত্ত উইকিপিডিয়া
পরিভ্রমণে চলুন অনুসন্ধানে চলুন
গুরু বিপিন সিংহ
Guru Bipin Singha.jpg
জরম ২৩ আগষ্ট, ১৯১৮ ইং
সিঙ্গারী গাঙ, শিলচর, অসম, ভারত
দৌ অনা ৯ জানুয়ারীর, ২০০০ সন
কলিকাতা শহরে
জাতীয়তা ভারতীয়
কামর ক্ষেত্র নাচা
নাঙকরা শিল্পকর্ম মণিপুরী নাছা
পুরষ্কার নর্তনাচার্জ (১৯৫৯ ইং),হাঞ্জাবা (১৯৬১ ইং), জাতীয় সঙ্গীত নাটক একাডেমি (১৯৬৫ ইং), শ্রীহট্ট সম্মেলন পুরস্কার (১৯৮১ ইং), বিশ্ব উন্নয়ন সংসদ পুরস্কার (১৯৮২ ইং), কলাভারতী (১৯৮৩ ইং), প্রতিশ্রুতি পরিষদ পুরস্কার (১৯৮৪ ইং) সারংগদেব ফেলোশিপ (১৯৮৪ ইং), উদয় শংকর পুরস্কার (১৯৮৬ ইং), ওজা রত্ন (১৯৮৮ ইং), সংগীত শ্যামলা পুরস্কার (১৯৮৮ ইং), এমিরাটস ফেলোশিপ (১৯৮৯ ইং), কালিদাস সম্মান (১৯৯০ ইং),বহুলকা পুরঙ্কার (১৯৯১ ইং), অনামিকা কলা সঙ্গম -পুরস্কার (১৯৯২ ইং), পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য একাডেমি এওয়ার্ড (১৯৯২ ইং)।



প্রয়াত নৃত্যগুরু বিপিন সিংহই গেলগা ৬০ বছর ধরিয়া মণিপুরী এলা-নাছা এতার বিভিন্ন বিষয় নিয়া গবেষণা করেছিল। লগে মূলফাতকরিয়া বৈষ্ণব পদাবলীরউ চর্চা করেছিল। গিরকে বহু প্রচলিত বারো মাঙয়া গেছিলগা এলা-নাছা উতা সংগ্রহ করিয়া উতারে বিশুদ্ধ করিয়া ব্যবহার করেছিল। গুরুজীয়ে ধ্রুপদী ভারতীয় এলা- নাছার লগে জড়িত নিয়াম পারা লেরিক তার কলিকাতা বারো মণিপুরর ঘরে ব্যক্তিগত ভাবে সংগ্রহ করিয়া থসিল।


গুরু বিপিন সিংহই নিয়াম সাফল্যর সহিত মন্দির বারো সমাজর গণ্ডীর ভিতরে আবদ্ধ অয়া আছিল মণিপুরী নাছা এহানরে উহানর ঐতিহ্য বারো বিশুদ্ধতা উহান রক্ষা করিয়া বিশ্বমঞ্চে উপস্হাপিত করতে সক্ষম অছিল।


মণিপুরী নাছাত নিজরে সম্পূর্ণ কাৎকরেছিল জীবনর আরাক নাঙ আহান অইলগাতায় গুরু বিপিন সিংহ। গিরক ঋষিতুল্য পুরুষ আগ ধ্রুপদী পরম্পরা এহানরে রক্ষা করিয়া মণিপুরী নাছারে জনপ্রিয় করানিরকা বুলিয়া গিরকে আপ্রাণ চেষ্টা করেছিল। গুরুজীর আরাক উল্লেখনীয় কাম আহান অইলগাতায় আট/দশ ঘণ্টা ডিগল রাস এহানরে মাত্র ঘণ্টা দেড়ঘণ্টার ভিতরে সংক্ষেপ করানি সত্ত্বেও উহানর ভিতরে হাব্বি উপকরণ বারো নাটকীয়তা বজায় থয়া নুৱারূপ আহান দিয়া মঞ্চোপযোগী করেছিল। শাস্ত্রীয় মণিপুরী নাছাত যে লুহান আছে উহানরে গুরুজীয়ে নুৱা দৃষ্টি আহানল আবিষ্কার করেছিল । বৈষ্ণব পদাবলী বারো পুরাণা গুরুর রচনা উতার আত্মিক অনুধাবন করিয়া উতাত্ত নুৱা ধরণর এলা রচেয়া গেছিলগা। যে এলার ভিতরে নাকি শাস্ত্রীয় মণিপুরী নাছার হাব্বি বৈশিষ্ট্য উতা প্রকট অর বারো লগে বর্তমান যুগর সাংস্কৃতিক চেতনা উহানরেউ ছকরগা।


জরম[পতিক]

১৯১৮ ইংরাজীর ২৩ শে আগষ্ট মানে গেলগা শতাব্দীর দ্বিতীয় দশকর লমৈতেগা বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর যেবাকা সিলেটে আয়া পইলাকারকা বুলিয়া মণিপুরী নাছা এহান দেহেরগা ঠিক উহানর পনেরো মাস পিছে গুরু বিপিন সিংহ জরম অর। পুণ্য মাতৃভূমি সিঙ্গারী গাঙ,পুণ্য চেলপা বাপক লেইখমসেনা সিংহ, পুণ্যবতী গর্ভধারিনী ইমা ইন্দুবালা দেবী। তানুর এ পুতক এগয় তানূর নাঙহান হাব্বি বিশ্বর মুঙে ফৌকরে দিল। যেহান নাকি হুদ্দা ভাগ্যবান মালক-বাপকর কপালে ঘটেরতা।


পরিচয়[পতিক]

সমাজর বহু গিরি-গিথানিয়ে মাততারা-বিপিনে যেতা করেছে উতা নিজর নাঙরকা বুলিয়া করেছেতা। সমাজরকা বুলিয়া কিতা করেছেতা? তা নিজর স্বার্থরকা বুলিয়া নিজরে মৈতেয়গ বুলিয়া পরিচয় দেছিল। কিন্তু উহান হায়হান নাগৈ। উহানর বিষয়ে গিরকে বিভিন্ন সময়ে স্পষ্ট মাতিয়া গেছেগা। মোরে মণিপুরে পরিচয় করুৱাছেগ ই.নীলকান্ত সিংহ গিরকে। তা উচচ-শিক্ষিত স্কলারগ যদি অউ তার মনহান শিল্পীআগর ডেকি। তা মাতেছিল-শিল্পীর ভিতরে কোন খ্রীষ্টান নেই,কোন মুসলমান নেই,কোন হিন্দু নেই, কোন বাঙালী নেই, কোন মণিপুরী নেই। কিন্ত্ত শিল্পী আছিতাই হাবিব জাতর ভিতরে। তা উপেইর মানুরে মাতেছিল-আপনারা বিপিনরে বিচার করবাঙ কাছাড়র মানুগ বুলিয়া নাগৈ, বিচার করবাঙ হুদ্দা শিল্পী আগ বুলিয়া হে।


হিকানিহান[পতিক]

গুরু বিপিনে মাতেছিল -এ-বিদ্যা এহান হিকাত যিতেগা হুদ্দা মনিপুর নাগৈ অন্যান্য বিভিন্ন জাগাতৌ পদে পদে যে অপমান বারো অবমাননা পাছু উহান হুদ্দা মিয়ে হারপাছু। মণিপুরে গিয়া পয়লাদে মি মৈতেয় ঠারহানউ নুয়ারেছিলু। উবাকা যে মি কি অসুবিধাত পরেছিলু উহান হুদ্দা ভগবানেই জানে। অজা গিরকরাঙ যেবাকা ‘মপোপ জগোই’ উহানর অর্থহান আঙকরলু, উবাকা অজা গিরকে ছৌঅয়া মাতেছিল- নাছা হিকানিত আহেছত আরতা মপোপ জগোই অর্থহানেই হারনাপাছত। নাইতৈ নাইতৈ তোর দ্বারা নাছা হিকানি নাইতৈ। যাগা যাগা,তি ফিরিয়া যাগা। উতা হাব্বি জারিয়া মুরগ কি্তক নঙেয়া দিন এতা পারি দিলুতা । মণিপুরে নাছা হিকাত গিয়া আক-বছর, দ্বি-বছর নাগই পুরা হাত বছর হুদ্দা রাতিকার বেলাহান খেয়া কাটাছিলু। দিনে নাছা হিকানি বাদে পেইলু সময় উহানি অজা লকেইর সেবা করিয়া কাটেইলু।


লক্ষনৌ ভাতখণ্ড সঙ্গীত বিশ্ববিদ্যালয়র লোকনৃত্য বিভাগর অধ্যাপক শ্রীমুকুন্দদাস ভট্টাচার্য গিরক যেবাকা বিপিন গিরকর অন্তিম দিন উতাত গিয়া দেহা করেছিলগা- উপেই যে কথাহানি অছিল,যে ভাবহান গিরকে প্রকাশ করেছিল। উহানে তার মাতৃভূমির প্রতি বানা, সমাজ প্রেম আদি ফুটিয়া উঠেছে। গিরকরে দেহিয়া ভট্টাচার্য গিরকে যেবাকা মাতেছে - গিরক নুয়ারা অছে বুলিয়া আপ্পানে মাততারাতা,আপনারে দেহিয়া মনে অর যেন এবাকা কাশ্মীরেত্ত (আগর) তাজা অয়া নামিয়া আহেছত। উবাকা বিপিন গিরকে হাতেক্ক মুকছি আহান দিয়া মাতেছিল - প্রদীপ এগ নিবিয়া যানির আগে আকখুরুম দপ করিয়া লাগিয়া উঠেরগ, উহানেই ....... । কথা উহানি মাততে তা নিয়াম হীনপেয়া টটরার উহান দেহিয়া ভট্টাচার্য গিরকে ধরিয়া ঘুমজাদেছে। উপেই ঘুমজা ঘুমজা মাতেছে- শিলচর সঙ্গীত বিদ্যালয় উগর মাধ্যমে আমার দেশর মাটিত আদর্শ মণিপুরী নাছার শিক্ষা ক্ন্দ্রে আগ খুলতউ- এহানেই মোর ইচ্ছাহান । কথা উহান মাততে মাততে আহির পটগদে আহির পানি পরানি অকরল । গিরকে হবা করে হারপানি নুয়ারল, তা অনুভব করল হইত গারিগ হিনপার উহানল নতুবা এ অন্তিম বয়সে দেশর ঘরে মাতৃভূমিত যানি নুৱারল অউ দুঃখে। অউ মুহুর্ত্তে বিন্দু আহানৌ বিশ্বাস নাছিল যে গিরক মা আহান পিছেই হাব্বিরে এরাদিয়া পরধামে জাত্রা করতই । উদিন দেশর মানুগ কাদাত পেয়া উগর আত দ-হানি ধরিয়া আকখুরুম মুরগত, আকখুরুম কপালহানাত, আকখুরুম বুকগত লাগাছিল। উহান দেহিয়া গেছেগা গিরক উগ আর আহির পানি আটকা নুৱারেছে ।


বিশেষ মুহূর্ত[পতিক]

বহুবছর আগে আকখুরুম এসাদে ঘটনা আহান অছিল। গিরক উবাকা জাভেরী বৈইবুনি সহ পুরা দলহানল ইউরোপ ট্যুরে। উপেইত মণিপুরী নাছার প্রদর্শন দেহুয়েইয়া হাব্বিরেল গাঙর ঘরে আইতায়। ঠিক উ তাঞ্জা উগত আসামর মাননীয় রাজ্যপাল বারো মুখ্যমন্ত্রি গিরকর মুঙে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করানিরকা বুলিয়া শিলচর সঙ্গীত বিদ্যালয়রে দায়িত্ব দিলা। উসাদে কোন যোগাড় নেই, এমাটিক কমদিনর ভিতরে কিসাদে সন্তব অইতৈতা! তানু গিয়া গুরু বিপিনর শরণ লইলাগা। উপেই গুরু বিপিনে দ্বি-কথা নাকরিয়া প্রোগ্রামহান করতৈ বুলিয়া কথা দিল। মাতল -ইউরোপহান হাব্বিহান বুলিয়া যে জয় মালাডাল নিয়া আউরী উহান বৃথা অইতৈ যদি না শিলচরর মাঢিত অনুষ্ঠান এহান করে নুৱারউরী। মোর জন্মস্হানর মানুয়েই যদি মোর কৃতকর্ম নাদেখতারা উহান অইলে এ জয়মালা এডালর মুল্যহান কোম্পেইত? ফুটিয়া উঠিল তার চরিত্রর সংবেদনশীল দিক আহান, জন্মভূমির প্রতি তেৎনেই শ্রদ্ধা বারো খৌরাঙহান।


প্রথাগত কোন বিদ্যা নালনি সত্ত্বেও গিরক জ্ঞানর ভাণ্ডারগ। সংস্কৃত, বাংলা, ইংরাজী, মৈতৈ, আসামী, গুজরাটী বারো হিন্দী ভাষা উতা হাবি গিরকর কণ্ঠস্হ। গিরকে বিভিন্ন ধর্মীয় বারো এলা-নাছার লেরিক পাকরানি সত্ত্বেও কাছাড়, মণিপুর, সিলেট বারো ত্রিপুরার নাঙকরা অজা উতারাঙত এলা-নাছা হিকেছিল। ১৯৭২ ইংরাজীত গিরকে ‘মণিপুরী নর্ত্তনালয়’, নাঙল মুন্বাই, কলিকাতা বারো মণিপুরে নাছার কেন্দ্র খুলিয়া অলেখ ছাত্র-ছাত্রীরে শিক্ষাদান দেছিল। পিছেদে অউ ছাত্র-ছাত্রী উতায় তার ফিরালহান বিশ্বে উড়েইতে সক্ষম অছিলা।


গিরকর উল্লেখযোগ্য কতগ শিষ্য বারো শিষ্যা অইলাগাতায় যথাক্রমে - জাভেরী বনকলকেই (নয়না, রঞ্জনা, সুবর্ণা বারো দর্শনা) লতাসেনা দেবী,ইবেয়মা দেবী, যোগেন্দ্র দেশাই, স্বর্গীয় গুরু সুরেন্দ্র সিংহ, গুরু দেবেন্দ্র সিংহ এতা হাবি মুম্বাই শহরে। উতার পিছে কলিকাতাত কলাবতী দেবী, গৌরী দত্ত, প্রীতি প্যাটেল, শ্রুতি ব্যানার্জী, মণিপুরে গুণেশ্বরী, থাম্বাল সেনা, থাম্বাল তম্বী, যমুনা বারো প্রেমলতা দেবী, আসামে গুরু রথীন্দ্র সিংহ (ধুম্র), সত্যজিৎ সিংহ, বাবুসেনা সিংহ, তামফাসেনা সিংহ,গুরু আদিত্যসেনা রাজকুমার, খেলেন্দ্র মুখার্জী, সুচিত্রা সিংহ বারো শ্রীমতী রেখা তালুকদার আদি।


সম্মান বারো পুরস্কার[পতিক]

গিরকে জীবনে বহু সম্মান বারো পুরস্কার পাছে। উতার ভিতরে উল্লেখযোগ্য অইলতায় –

১. নর্তনাচার্জ (১৯৫৯ ইংরাজীত),

২. হাঞ্জাবা (১৯৬১ ইং),

৩. জাতীয় সঙ্গীত নাটক একাডেমি (১৯৬৫ ইং),

৪. শ্রীহট্ট সম্মেলন পুরস্কার (১৯৮১ ইং),

৫. বিশ্ব উন্নয়ন সংসদ পুরস্কার (১৯৮২ ইং),

৬. কলাভারতী (১৯৮৩ ইং),

৭. প্রতিশ্রুতি পরিষদ পুরস্কার (১৯৮৪ ইং),

৮. সারংগদেব ফেলোশিপ (১৯৮৪ ইং),

৯. উদয় শংকর পুরস্কার (১৯৮৬ ইং),

১০. ওজা রত্ন (১৯৮৮ ইং),

১১. সংগীত শ্যামলা পুরস্কার (১৯৮৮ ইং),

১২. এমিরাটস ফেলোশিপ (১৯৮৯ ইং),

১৩. কালিদাস সম্মান (১৯৯০ ইং),

১৪. বহুলকা পুরঙ্কার (১৯৯১ ইং),

১৫. অনামিকা কলা সঙ্গম -পুরস্কার (১৯৯২ ইং),

১৬. পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য একাডেমি এওয়ার্ড (১৯৯২ ইংরাজীত)।


সম্মান জানাছি সংস্হা বারো সন হানি অইলতায় যথাক্রমে -

১. রূপকার ডান্স একাডেমি (১৯৯৪ ইং),

২. নূপূর ডান্স একাডেমি (১৯৯৫ ইং),

৩. সুরনন্দন ভারতী (১৯৯৫ ইং),

৪. শিরোমণি পুরস্কার (১৯৯৬ ইং),

৫. নিখিল বিষ্ণুপ্রিয়া মণিপুরী পুরস্কার (১৯৯৭ ইং),

৬. অঙ্গাহার ডান্স একাডেমী (১৯৯৮ ইং), আদি ।


দৌ অনা[পতিক]

এসাদে বিভিন্ন হুর্কাঙ ডাঙর সম্মানে বিভূষিত গিরক এগো গত ২০০০ সন জানুয়ারীর ৯ তারিখ কলিকাতা শহরে থায়া উপেইত্ত পরলোকে যাত্রা করল। আমার আশা, তেৎনেই খোরাঙ গিরকর পরবর্ত্তী বংশধর, শিষ্য-শিষ্যা, বজেকুরাই বিভিন্ন দিক দিয়া গিরকর পথ এগ যেন আরাকৌ চাঙখল-বুজ্জিল বরা করে দকা।


পাসিতা[পতিক]

১. মেইরিক মিঙাল - সুনীল কুমার সিংহ সম্পাদিত, জানুয়ারী মারি ২০১১

২. মেইরিক মিঙাল কভার

৩. Bishnupriya Manipuri History